Home >> Academic Book >> anish das apu pdf >> প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ গাইড Pdf Download

Thursday, October 29, 2020

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ গাইড Pdf Download

 

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ গাইড pdf download

এ পোস্টে আমরা প্রাইমারি বা প্রাথমিক স্কুল শিক্ষক নিবন্ধন প্রস্তুতি ও নিয়োগ পরিক্ষার গাইড বইয়ের পিডিএফ download pdf একদম শেষে সংযুক্ত করেছি। তার আগে প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষায় ভাল করার কৌশল ও পরিক্ষা পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করেছি।

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষার প্রশ্ন পদ্ধতি:

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২টি পরীক্ষার মাধ্যমে মোট ২ ধাপে সম্পন্ন করা হয়। যথা—


প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ২০০ নম্বরের ২ টি পরীক্ষা হয়ে থাকে। এই পরীক্ষা সব বিষয়ের পরীক্ষার্থীর জন্যে আবশ্যিক। ২ টি পরীক্ষায় পৃথক পৃথক ভাবে পাশ করতে পারলে তবেই কেবল নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ বলে গন্য হবে।


ধাপ ১/ পরিক্ষা ১:
১ম পরিক্ষাটি হচ্ছে ১ ঘন্টার ১০০ নম্বরের পরিক্ষা।
যেখানে ৮০ নম্বর M.C.Q /নৈর্ব্যক্তিক টাইপের পরিক্ষা নেওয়া হয় যা একটি লিখিত পরীক্ষা। বাকিটা হচ্ছে মৌখিক পরীক্ষার জন্য ২০ নম্বর।
লিখিত এ মোট পাশ মার্ক ৪০।  এখানে প্রতিটি প্রশ্নের ভুল উত্তরের জন্যে প্রাপ্ত মোট নম্বর থেকে ০.২৫  নম্বর কাটা যাবে।
যখন লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হবে কেবল তখন মৌখিক পরীক্ষার জন্য ডাকা হবে।


ধাপ ২/ পরিক্ষা ২:
এরপর ২য় ধাপে অর্থাৎ আবারো ১০০ নম্বরের নির্দ্দিষ্ট বিষয়ের বা ঐচ্ছিক বিষয়ের পরীক্ষা হবে। অর্থাৎ প্রার্থী কতৃর্ক যে বিষয়ের প্রভাষক পদের জন্যে আবেদন করা হয়েছিল; সেই বিষয়ের পরীক্ষা, যার সময়সীমা ৩ ঘন্টা। পাশ মার্ক তাও ৪০।


প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষার মানবন্টন:-

লিখিত পরিক্ষার মোট নম্বর: ৮০ মার্কস
যথা:

বাংলা -20 মার্কস
★বাংলা সাহিত্য-3 মার্কস
★বাংলা ব্যাকরণ -17 মার্কস
গনিত- 20 মার্কস
★পাটিগনিত-8/9 মার্কস
★বীজগনিত-5/6 মার্কস
★জ্যামিতি-5 মার্কস
ইংরেজি-20 মার্কস
সাধারণ জ্ঞান-20 মার্কস
★বাংলাদেশ7/8 মার্কস
★আন্তর্জাতিক-5/6 মার্কস
★সাম্প্রতিক 5/6 মার্কস

বি:দ্র: শিক্ষক নিবন্ধন লিখিত প্রশ্ন ব্যাংক pdf এর কালেকশন আমাদের ওয়েবসাইটে দেখুন।

ভাইবা পরিক্ষার মোট নম্বর: 20 মার্কস


প্রাইমারিতে শিক্ষক হিসেবে চাকরি পাবার গাইডলাইন:

মনে রাখবেন, নিচে দেওয়া টিপসগুলো প্রভাষক নিবন্ধন লিখিত পরীক্ষার প্রশ্ন উত্তরের কৌশল ও জেনুইন বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার গাইডলাইন।

# বাংলা
জোর দিতে হবে : বাংলা অংশে ব্যাকরণের ওপর
বেশি জোর দিতে হবে। অষ্টম ও নবম-দশম
শ্রেণির বোর্ড প্রণীত ব্যাকরণ বইয়ের সব
অধ্যায় উদাহরণসহ ভালোভাবে পড়তে হবে।
জানতে হবে কবি-সাহিত্যিকদের সাহিত্যকর্ম ও
জীবনী সম্পর্কে। এসএসসি ও এইচএসসি বোর্ড
বইয়ের লেখক পরিচিতি ও সাধারণ জ্ঞান বইয়ের
সাহিত্যিক পরিচিত, বই পরিচিতি অংশ পড়লে
অনেকটা সহায়ক হবে।
বিগত পরীক্ষায় যা এসেছে : ২৭ জুন ও ২৮
আগস্ট ২০১৫ নিয়োগের প্রথম ও দ্বিতীয়
ধাপের লিখিত পরীক্ষার প্রশ্নপত্র পর্যালোচনা
করলে দেখা যায়, ব্যাকরণ থেকে ভাষা, বর্ণ, শব্দ,
সন্ধি বিচ্ছেদ, কারক, বিভক্তি, উপসর্গ, অনুসর্গ,
ধাতু, সমাস, বানান শুদ্ধি, পারিভাষিক শব্দ,
সমার্থক শব্দ, বিপরীত শব্দ, বাগধারা, এককথায়
প্রকাশ থেকে প্রশ্ন এসেছে। সাহিত্য অংশে গল্প
বা উপন্যাসের রচয়িতা, কবিতার পঙ্ক্তি উল্লেখ
করে কবির নাম থেকে প্রশ্ন ছিল।

# ইংরেজি
জোর দেয়ার দরকার : ইংরেজি গ্রামারে Right
forms of verb, Tense, Preposition, Parts of Speech, Voice, Narration, Spelling, Sentence Correction-এর নিয়ম জানতে হবে এবং গ্রামার
বইয়ের উদাহরণ থেকে চর্চা করতে হবে। মুখস্থ
করতে হবে Phrase and Idoims, Synonym,
Antonym ভালোভাবে শিখতে হবে। বিভিন্ন
নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন সমাধান করলে ভালো
করা যাবে।
বিগত পরীক্ষায় যা এসেছে : বিগত দুই পর্যায়ের
পরীক্ষায় ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ এসেছে।


# গণিত
যা শেখা ও করা প্রয়োজন : পাটিগণিতের
পরিমাপ ও একক, ঐকিক নিয়ম, অনুপাত, শতকরা, সুদকষা, লাভক্ষতি, ভগ্নাংশ, বীজগণিতের সাধারণ সূত্রাবলী থেকে প্রশ্ন থাকে। মুখে মুখে ও সূত্র প্রয়োগ করে সংক্ষেপে ফল বের করার
প্র্যাকটিস করতে হবে। যাতে প্রশ্ন দেখামাত্রই
সূত্র প্রয়োগ করে ফল বের করা যায়।
জ্যামিতিতে প্রস্তুতি ত্রিভুজ, চতুর্ভুজ,
বর্গক্ষেত্র, রম্বস, বৃত্ত ইত্যাদির সাধারণ সূত্র
ও সূত্রের প্রয়োগ দেখতে হবে। মাধ্যমিক
পর্যায়ে পাঠ্যবই বিশেষত অষ্টম ও নবম-দশম
শ্রেণির গণিত বই অনুসরণ করলে ভালো হবে।


# সাধারণ জ্ঞানঃ
যা গুরুত্ব দিয়ে পড়া প্রয়োজন : প্রশ্ন বেশি
আসে বাংলাদেশ অংশে বাংলাদেশের শিক্ষা, ইতিহাস, ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধ, ভূপ্রকৃতি ও
জলবায়ু, সভ্যতা ও সংস্কৃতি, বিখ্যাত স্থান,
বাংলাদেশের রাষ্ট্র ব্যবস্থা, অর্থনীতি, বিভিন্ন
সম্পদ, জাতীয় দিবস থেকে প্রশ্ন আসে।.
#আন্তর্জাতিক অংশে বিভিন্ন সংস্থা, দেশ, মুদ্রা,
রাজধানী, দিবস, পুরস্কার ও সম্মাননা থেকে
খেলাধুলা প্রশ্ন থাকে।

সাধারণ বিজ্ঞান:

এখান থেকে বিভিন্ন রোগব্যাধি,
খাদ্যগুণ, পুষ্টি, ভিটামিন থেকে প্রশ্ন আসতে
পারে। নিয়মিত বেশি বেশি পত্রিকা পড়ার অভ্যাস
করলে সাধারণ জ্ঞানের প্রশ্নের উত্তর সহজ
হবে।

বিগত পরীক্ষায় যা এসেছে : বিগত দুই ধাপের
পরীক্ষায় অন্যান্য বিষয়ের সঙ্গে ভারতীয়
উপমহাদেশের ইতিহাস, কম্পিউটার ও
তথ্যপ্রযুক্তি থেকে প্রশ্ন করা হয়।


প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ গাইড pdf free download link: click here








EmoticonEmoticon